• শুক্রবার , ১৯ জুলাই ২০২৪

রেললাইন গলিয়ে নাশকতা


প্রকাশিত: ১১:১৫ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২৩ , বুধবার

নিউজটি পড়া হয়েছে ৪৬ বার

০০ ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত-এক
০০ অক্সিঅ্যাসিটিলিনে রেললাইন গলিয়েছে
০০ এই নাশকতা বিএনপি ঘটিয়েছে: কাদের

 

বিশেষ প্রতিনিধি/গাজীপুর প্রতিনিধি : রেললাইন গলিয়ে নাশকতায় গাজীপুরে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন। দূর্ঘটনায় ট্রেনচালক ও তার সহকারী গুরুতর আহত হয়েছেন। ঘটনার নেপথ্যে সংঘবদ্ধ পরিকল্পিত নাশকতা রয়েছে বলে বাংলাদেশ রেলওয়ে এবং ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলাম দৈনিক সত্যকথা প্রতিদিন কে জানিয়েছেন।

তিনি জানান, নাশকতাকারীরা রেললাইন গলাতে অক্সিঅ্যাসিটিলিন ব্যবহার করেছিল। এ ঘটনায় ব্যবহৃত সিলিন্ডার উদ্ধার করা হয়েছে। রেললাইন গলিয়ে এই নাশকতাকারীদের চিহ্নিত করতে আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, নাশকতাকারীদের সকলকে চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে।
এদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাত জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিরোধী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বিএনপি বাস, ট্রেন আগুন দেওয়া অব্যাহত রেখে এবার ট্রেনের রেললাইন গলিয়ে নাশকতা করল বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সরেজমিনে জানা গেছে, বুধবার ভোর ৪টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের বনখড়িয়া এলাকায় রেললাইন কাটা থাকায় মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের লোকোমোটিভসহ সাতটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে আসলাম হোসেন নামে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের এক যাত্রী নিহত হন। আহত হন আরও অন্তত ১০ জন। ট্রেনটি নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ থেকে ঢাকার কমলাপুরের দিকে যাচ্ছিল।
এ ঘটনার রহস্য উদঘাটনে দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি কমিটি করেছে রেলওয়ে প্রশাসন। আরেকটি করেছে গাজীপুর জেলা প্রশাসন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বলেন, নাশকতা সৃষ্টির জন্য দুর্বৃত্তরা রেলপথের একটি অংশ কেটে রেখেছিল। ওই স্থানে ট্রেন পৌঁছালে ইঞ্জিনসহ সাতটি বগি লাইনচ্যুত হয়।লাইন কেটে ফেলায় বুধবার ভোরে গাজীপুরের ভাওয়াল রেলস্টেশনের কাছে ঢাকাগামী মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের ৭টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে একজন নিহত ও আহত হয়েছেন আরো কয়েকজন।

দুর্ঘটনায় পড়া টেনের সাতটি বগি লাইনের ওপর ওলটপালট হয়ে পড়েছে। একাধিক বগি ছিটকে পড়েছে পাশের ধানক্ষেতে।
বাংলাদেশ রেলওয়ের রেলওয়ের ঢাকা বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ট্রান্সপোর্টেশন অ্যান্ড কমার্শিয়াল) মোহাম্মদ শফিকুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, দুর্বৃত্তরা নাশকতার উদ্দেশ্যে রেল লেইন কেটে এ দুর্ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।

রেলের সাত সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে বিভাগীয় সংকেত ও টেলিযোগাযোগ প্রকৌশলী সৌমিক শাওন কবিরকে।
আর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবিরকে প্রধান করে গঠন করা হয়েছে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি।
দুই তদন্ত কমিটিকেই আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এটা বিএনপির নাশকতা-ওবায়দুল কাদের

বিএনপির নাশকতার কারণেই গাজীপুরে ট্রেন দুর্ঘটনা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
সাত জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনবিরোধী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বিএনপি বাস, ট্রেন আগুন দেওয়াসহ নাশকতা করছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
এদিকে দুর্ঘটনায় পড়া ট্রেনের ইঞ্জিনসহ সাত উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।আর লাইন কেটে ফেলায় ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটের রেলপথ বন্ধ থাকলেও বিকল্প পথে ট্রেন চালানো হচ্ছে। ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী ট্রেনগুলো চলছে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ দিয়ে।

অক্সিঅ্যাসিটিলিনে রেললাইন গলিয়েছে

ঢাকা-ময়মনসিংহ রেললাইন কাটতে অক্সিঅ্যাসিটিলিনের ব্যবহার করেছে দুর্বৃত্তরা। তারা অক্সিঅ্যাসিটিলিনের মাধ্যমে রেললাইন গলিয়ে এই নাশকতা করেছে। পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলাম বুধবার দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের বনখড়িয়া এলাকায় মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রেললাইনে নাশকতার ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। নির্বিঘ্নে চলাচলে এখন দেশের মানুষের আস্থার জায়গা ট্রেন। যারা এখানে যারা নাশকতা করেছে, এত বড় একটি দুর্ঘটনা ঘটানোর পরিকল্পনা করেছে, তাদের সবাইকে খুঁজে বের করব আমরা।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ডিআইজি নুরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনা তদন্তের মাধ্যমে আমরা ক্লু বের করবো। তাদের প্ল্যান, প্রিপারেশন এগুলো জানব। এখানে রেললাইন গলিয়ে ফেলা হয়েছে। অক্সিজেন ও ইথেন গ্যাস সংযুক্ত করে দেড়/দুই হাজার ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা হয়ে যায়।এ ধরনের ম্যাকানিজম যারা দিয়েছে, যারা নেতৃত্ব দিয়েছে তাদের সবাইকে আমরা আইনের আওতায় আনব। বাংলাদেশে যেন আর কেউ ট্রেনে নাশকতা চালাতে না পারে সে অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নেব।এই দুর্ঘটনায় আহত ট্রেনের চালক চালক ও তার সহকারীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে সহকারী সবুজ শঙ্কামুক্ত। তবে চালক ইমদাদুল হকের অবস্থা গুরুতর।