• সোমবার , ১৫ জুলাই ২০২৪

‘মি.ফিজ থেকে শিখতে পারে আইপিএল খেলোয়াড়রা’


প্রকাশিত: ১:৪৯ এএম, ১৯ এপ্রিল ২৪ , শুক্রবার

নিউজটি পড়া হয়েছে ৭৮ বার

স্পোর্টস রিপোর্টার : এবারের আইপিএলে ৫ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় মোস্তাফিজুর রহমান অবস্থান করছেন তিনে। দারুণ ছন্দে থাকা মোস্তাফিজুর রহমান নিয়মিত মাঠে নামছেন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজের কারণে আগামী মাসের শুরুতে দেশে ফিরে আসতে হবে ফিজকে।

সিরিজে অংশ নিতে ২ মে দেশে ফিরে ৩ মে জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দিতে হবে তাকে। আইপিএলে দারুণ ফর্মে থাকা মোস্তাফিজকে জিম্বাবুয়ের সিরিজের জন্য না এনে আইপিএলে বাড়তি সময় দেওয়াটা আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ভালো হবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) মিরপুরে এমন প্রশ্ন করা হয় বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসকে। জবাবে তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজের আইপিএলে শেখার কিছু নাই। শেখার সময় পার হয়ে গেছে। বরং তার কাছ থেকে শিখতে পারে আইপিএল খেলোয়াড়রা। এতে বাংলাদেশের কোনো লাভ হবে না। মোস্তাফিজকে কাছে পেলে অন্যদের সুবিধা হবে।’

ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে অংশ নিতে মোস্তাফিজকে আইপিএলে না রেখে দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যায় জালাল বলেন, ‘আইপিএল আপনাদের কাছে মনে হয় শুধুমাত্র ৪ ওভারের খেলা। কিন্তু এটা কি জানেন, কতটা ধকল নিতে হয়? খেলা শেষে রাত ১টায় এয়ারপোর্টে ঘুমিয়ে থেকে তাদের ট্র্যাভেল করতে হয়। এটা অনেক কষ্ট।’জিম্বাবুয়ে সিরিজে সামনে রেখে মোস্তাফিজকে দেশে ফিরিয়ে আনা হলেও বিসিবির তাকে সব ম্যাচে মাঠে নামানোর পরিকল্পনা নেই।

‘তারা (চেন্নাই) চাইবে মোস্তাফিজ থেকে শতভাগ নেওয়ার জন্য। তার ফিটনেস, স্বাস্থ্য- এসব নিয়ে তাদের মাথাব্যথা নেই, কিন্তু আমাদের আছে। তাকে এখানে ফেরানোর কারণ শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য নয়। জিম্বাবুয়ে সিরিজে আমরা তাকে ওয়ার্ক লোড ঠিক রেখে খেলাব। আইপিএলে থাকলে সেই পরিকল্পনা হবে না। সুতরাং মুস্তাফিজের শেখার অধ্যায় শেষ। মুস্তাফিজকে শেখানোর আর কোনো দরকার নেই। সে সাত-আট বছর ধরে ক্রিকেট খেলে। আইপিএলে খেলে। তো লাভবান তারা হবে, আমরা হব না।’

দেড় মাস পর ১ জুন হতে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মুস্তাফিজকে পূর্ণ ফিট হিসেবে চান জালাল, ‘মুস্তাফিজকে দেশে ফিরিয়ে আনা মানেই যে আমরা তাকে জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলাব তা নয়। আমরা তাকে ওয়ার্ক লোড দেব, চাপ কমাব, দলের সঙ্গে থাকবে, বোঝাপড়া বাড়বে। বিশ্বকাপের মতো একটা বড় ইভেন্টে যাচ্ছে, যাওয়ার আগে তো এডজাস্ট করতে হবে। ফিট থাকতে হবে। আই নিড হিম। ফ্রেশ মুস্তাফিজকে চাই।’