• শুক্রবার , ১৯ জুলাই ২০২৪

বরিশালে নো বিরোধী দল


প্রকাশিত: ১২:৩০ এএম, ২৪ ডিসেম্বর ২৩ , রোববার

নিউজটি পড়া হয়েছে ৩৮ বার


লোকের সুখ শান্তি বিএনপি চায় না: শাহজাহান ওমর-

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়া) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বলেছেন, সামনে নির্বাচন হবে। বিরোধী দল নির্বাচন বয়কট করার চেষ্টা করবে। আমি যখন আপনাদের আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি, তখন এ অঞ্চলে বরিশাল বিভাগে আর কোনো বিরোধী দল (বিএনপি) থাকবে না। শেখ হাসিনার এই আস্থা আমার ওপর আছে। শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঝালকাঠির রাজাপুরের কানুদাসকাঠি ইসলামিয়া কমপ্লেক্স মাঠে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর বলেন, আমি অলরেডি কাঁঠালিয়ার সকল বিএনপির লোক নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছি। রাজাপুরেরও অনেক অংশ এসে গেছে দু-একটা নাবালোক এদিক ওদিক ঘোরাফেরা করতেছে। আমি যখন এই দলে এসেছি তারাও আমার সাথে এই দলে এসে যাবে। তিনি বলেন, আমি হারুন সাহেবের (সংসদ সদস্য আলহাজ বজলুল হক হারুন) বাড়া ভাতে ভাগ বসাতে আসি নাই। আমি হারুন ভাইকে বলেছি আপনার কোনো কাজে বাধা দিতে আসি নাই।

শাহজাহান ওমর বলেন, গণতন্ত্র ওই দেশের জন্য প্রয়োজন যে দেশের মানুষ রাতে না খেয়ে ঘুমায় না, যে দেশের মানুষ ছাদের নিচে ঘুমায়, যে দেশের মানুষ মোটামুটি লেখাপড়া জানে পেপার-পত্রিকা পড়ে, পৃথিবী সম্পর্কে ধারণা নেয় তাদের জন্য গণতন্ত্র। আমার দেশের গণতন্ত্র হবে আমাদের দেশের লোকে যেটা অনুভব করে সেই হিসেবে। আমাদের দেশের লোকে চায় সুখে শান্তিতে থাকতে। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ বজলুল হক হারুন।

তিনি বলেন, এই নৌকা সেই নূহ নবীর নৌকা। এই নৌকা স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুর নৌকা। নেত্রী যেহেতু শাহজাহান ওমর সাহেবকে নৌকা দিয়েছেন এখন আমরা দুজনেই এক হয়ে এই অঞ্চলের উন্নয়ন করবো।
সভায় আরও বক্তব্য দেন রাজাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান, রাজাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সঞ্জীব কুমার বিশ্বাস, কাঁঠালিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান বদু সিকদার, মঠবাড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, কাঁঠালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তরুন সিকদার, রাজাপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা লাইজু প্রমুখ।