• সোমবার , ২২ জুলাই ২০২৪

জাকারবার্গের যথাযথ শাস্তি না হওযায়..


প্রকাশিত: ৩:৪৩ পিএম, ৩ এপ্রিল ১৮ , মঙ্গলবার

নিউজটি পড়া হয়েছে ১৭৯ বার

 

whatssapp-www.jatirkhantha.com.bdডেস্ক রিপোর্টার :  ভুক্তভোগীরা বলেছেন, মোটা অংকের জরিমানা ও যথাযথ শাস্তি না হওযায় এবার  জাকারবার্গের হোয়াটসঅ্যাপের বিরুদ্ধে তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছে।এ ঘটনাটি যখন ঘটলো তখন ফেসবুকের পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য কেলেঙ্কারির কথা ফাঁস হওয়ার পর যখন চলছে ‘ডিলিট ফেসবুক’ ক্যাম্পেইন ঠিক তখন!

প্রযুক্তি-বিষয়ক ওয়েবসাইট ‘লাইফহ্যাকার’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘চ্যাটওয়াচ’ নামে আর একটি অ্যাপের মাধ্যমে গোপনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের কথাবার্তায় আড়ি পাতা হচ্ছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপের কনট্যাক্ট লিস্টে উঁকি মারতে পারবেন যে কেউ। কে কতক্ষণ কার সঙ্গে কথা বলছেন, বা সাধারণত কতটা সময় হোয়াটসঅ্যাপে থাকেন, তা-ও জানা যাবে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ফেসবুকের তথ্য চুরির ঘটনায় যখন ব্যবহারকারীরা অ্যাকাউন্ট ডিলিট করছেন তখনই গোপনে এ কাজ করছে ‌‌‘চ্যাটওয়াচ’। এটি প্রথম এসেছিল অ্যাপলে। কিন্তু পরে অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে দেয়। এখন অ্যান্ড্রয়েডে রয়েছে অ্যাপটি।ব্যবহারকারীর তথ্য সংগ্রহের জন্য কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে অ্যাপ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছিল ফেসবুক।

ওই অ্যাপের মাধ্যমে প্রায় পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য সংগ্রহের পরে তা বিশ্লেষণ করে ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে ব্যবহার করা হয়। এ কাজের সঙ্গে জড়িত এক অধ্যাপক সম্প্রতি মুখ খোলায় তা গণমাধ্যমে আসে। গোপনে এসব তথ্য হাতিয়ে নিয়ে তা ব্যবহার করে প্রতিষ্ঠানটি মার্কিন নির্বাচন নীতি ভঙ্গ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

পাঁচ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার কাছে চলে যাওয়ার কথা স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন মার্ক জাকারবার্গ। কিন্তু তারপরও সমালোচনা থামেনি। টুইটারে ফেসবুকের বিরুদ্ধে চলছে ‘ডিলিট ফেসবুক’ ক্যাম্পেইন।