৯ নং সেক্টর প্রতিষ্ঠায় মনজুর ও মেজর জলিলের পদোন্নতি

politisian-nurul-islam-monjur-www-jatirkhantha-com-bdবাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে দক্ষিণাঞ্চল:dsc03356dsc03357
বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে দক্ষিণাঞ্চল পর্ব ৩ :-
জাতিরকন্ঠ রিপোর্ট : পূর্বেই উল্লেখ করিয়াছি আমার এই লেখা প্রকৃতপক্ষে স্মৃতিচারণের মধ্যে দিয়ে দক্ষিণ বাংলার সমরাঙ্গণ ও মুক্তিযুদ্ধের dsc03295ইতিহাস তুলিয়া ধরার প্রয়াস।

যদিও মনে হয় এই সুদীর্ঘ ৪৪ বছর আমার স্মৃতির কিছু বিলুপ্তি ঘটা স্বাভাবিক, সুতরাং সম্পূর্ণ ও পূর্ণাঙ্গ চিত্র তুলিয়া ধরা সম্ভব নাও হইতে পারে।

এমতাবস্থায় আমার সেদিনের সহ মুক্তিযোদ্ধা সহকর্মীদের প্রতি অনুরোধ রইল, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত যে সকল ঘটনাবলী আমি উল্লেখ করিতে ভুলিয়া গিয়াছি, তাহারা যেন অনুগ্রহ করিয়া মুক্তিযুদ্ধ সম্বলিত সেসব তথ্যবলী/ঘটনাবলী আমাকে সরবরাহ করেন, আগামীতে সংযোজন করার জন্যে।

 বিপ্লবী বাংলাদেশের সম্পাদক সহ অধিনায়ক ক্যাপ্টেন নুরুল হুদা ক্রেস্ট দিচ্ছেন জেনারেল অরোরাকে

বিপ্লবী বাংলাদেশের সম্পাদক সহ অধিনায়ক ক্যাপ্টেন নুরুল হুদা ক্রেস্ট দিচ্ছেন জেনারেল অরোরাকে

আমি সাহিত্যিক লেখক বা বুদ্ধিজীবী নই।তবে আইনজীবী পেশায় জড়িত ছিলাম। সেটাও মূলত ফৌজদারি আইন পেশা। সুতরাং আমার ভাষায়ও উপস্থাপনায় শ্রুতিমধুর আবেগ ও অলংকার না থাকাই স্বাভাবিক। আশা করি পাঠক ক্ষমা সুন্দর দৃষ্ঠিতে দেখিবেন। সর্বোপরি ইহা একটি রোজনামচা। আমি স্মৃতিচারণ করিয়া ঘটনাবলী উল্লেখ করিতেছি।

আমি একজন রাজনৈতিক কর্মী ও মুক্তিযোদ্ধা। দেওয়ানি উকিল সাহেবদের বিশাল আর্জি লিখিতে হয়। অধিকন্তু আমি খুবই সক্রিয় রাজনীতিবিদ ছিলাম এবং বৃহত্তর বরিশাল জেলার ৩৪টি থানায় এবং থানার অন্তরভুক্ত অধিকাংশ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সংগঠন গড়িয়া তোলার জন্যে অগণিত সভা-সমিতি করিয়াছি।

প্রয়াত মেজর জলিল

প্রয়াত মেজর জলিল

এসময়ে সড়ক পথে যোগাযোগ ছিল না বলিলেই চলে, নদীপথেই যাতায়াত করিতে হইত। এমনকি অনেক সময় ১০/১৫ মাইল হাঁটিয়া সভাস্থলে পৌছিয়াছি। আবার অনেক সময় সাইকেল চালাইয়া ২০/২৫ মাইল অতিক্রম করিয়া জনসভায় যোগদান করিয়া দীর্ঘ সময় বক্তৃতা করিয়াছি। এমনকি অনেক সময় মাইক ছাড়া খালি গলায় বক্তৃতা করিতে হইয়াছে।

 জেনারেল ওরোরার সঙ্গে মনজুর


জেনারেল ওরোরার সঙ্গে মনজুর

দেশ ও বাংলার মানুষকে ভালোবাসিয়া জীবনের কৈশোরে যথাক্রমে কিশোর আন্দোলন ‘মুকুল ফৌজ’ ও যৌবনে ছাত্র আন্দোলন ‘ছাত্রলীগ’
এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আঙ্গিনা অতিক্রম করিয়া নিজেকে সক্রিয়া রাজনৈতিক কর্মকান্ডে নিয়োজিত করিয়াছিলাম পরবর্তীকালে মুক্তিযুদ্ধের প্রাক্কালে ফরিদপুর, খুলনা ও পটুয়াখালীসহ বৃহত্তর বরিশাল ও দক্ষিণ বাংলার মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করিয়া ৯ নম্বর সেক্টর প্রতিষ্ঠা করিয়াছি।

যথাক্রমে মরহুম ক্যাপ্টেন জলিলকে সামরিক অধিনায়ক এবং আমার অনুজ ক্যাপ্টেন মোঃ নুরুল হুদাকে সহঅধিনায়ক মনোনীত করি।

প্রবাসী বাংলাদেশ সরকার ক্যাপ্টেন জলিলকে মেজর পদে উন্নিত করিয়া ৯ নম্বর সেক্টরের অধিনায়ক ও ক্যাপ্টেন নুরুল হুদাকে সহ অধিনায়কের মনোনয়ন অনুমোদন করে এবং এপ্রিল’ ৭১ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রবাসী বাংলাদেশ বেতার ও আকাশবাণীর মাধ্যমে উক্ত মনোনয়নের ঘোষণা দেয়া হয়।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com