হাসিনার অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়-খালেদা

স্টাফ রিপোর্টার :  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশের মানুষ সুষ্ঠু নির্বাচন চায়, কিন্তু শেখ হাসিনার অধীনে khaleda-zia_eid-www.jatirkhantha.com.bdকোনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। কারণ তাদের গুণ্ডা বাহিনীর কার্যকলাপ দেশের মানুষ দেখেছে। এই অবস্থায় শেখ হাসিনার অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।সোমবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর খালেদা জিয়া চন্দ্রিমা উদ্যানে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন। বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, ঈদ অত্যন্ত আনন্দের দিন। কিন্তু এ বছর ঈদের আনন্দ কারো মাঝে নেই। কারণ সারাদেশে অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে এবছর। এর ফলে মানুষের মনে কোনো আনন্দ নেই।

সকলেই শোক, দুঃখ, ব্যথা বেদনা নিয়ে ভারাক্রান্ত মনে এই ঈদ করছে। খালেদা জিয়া বলেন, গত ১০ বছরে আওয়ামী লীগ প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিয়েছে। দেশের মানুষও পরিবর্তন চায়। এই সরকারে কাছ থেকে জনগণ আর ভালো কিছু আশা করে না।

তিনি বলেন, সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবে। জনগণ ভোটও দিতে পারবে। নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য সেনাবাহিনী মোতায়ন করতে হবে।সরকারের উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, গত ১০ বছরে অনেক করেছেন। গুম, খুন করেছেন। আল্লাহর কাছে বিচার হবে। এবার থামেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিন।

দেশের অর্থনেতিক বৈষম্যের কথা উচ্চারণ করে খালেদা জিয়া বলেন, এক শ্রেণির বিত্তশালী বিদেশে গিয়ে মার্কেট করছেন। আরেক শ্রেণি দুর্যোগের মধ্যে পড়ে আছে। দেশের মানুষ তো এখন ব্যাংকে টাকা রাখে না। কিন্তু যারা টাকা লুটপাট করেছে তাদের টাকা তো বিদেশে পাচার হয়ে গেছে।

দেশে দুর্ভিক্ষ অবস্থা বিরাজ করছে- এমন অভিযোগ করে খালেদা জিয়া বলেন, হাওরে এই ঈদের সময় দুর্ভিক্ষ চলছে। তারা একবেলাও খেতে পারছে না। বিশেষ করে হাওরের আগাম বন্যায় সেখানে বিপর্যয় এসেছে।

প্রথমে খালেদা জিয়ার সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নসহ বাংলাদেশে নিযুক্ত কূটনীতিক, দাতাসংস্থার প্রতিনিধিরা। এর পরে বিশিষ্ট নাগরিকরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। পরে দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের সঙ্গেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। অনুষ্ঠানে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যসহ দলের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com