মেহেরপুর ‘জঙ্গি আস্তানা’ দুই নারী আটক

মেহেরপুর প্রতিনিধি  :  মেহেরপুর গাংনী উপজেলার বামন্দীতে ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়িতে পুলিশের অভিযান শেষ gagni gongi-www.jatirkhantha.com.bdহয়েছে। অভিযানে বাড়ির মালিক সৌদি প্রবাসী মিশকাত আলীর ছেলে হাসিবুল হাসানসহ (২৫) ভাড়াটিয়া দুই নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন গাংনী উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের আব্বাস আলীর স্ত্রী রজনী খাতুন (২০) ও কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার কিশোরীনগর গ্রামের বরকত আলীর স্ত্রী মাবিয়া খাতুন (৩৫) এবং বাড়ির মালিক সৌদি প্রবাসী মিশকাত আলীর ছেলে হাসিবুল হাসান (২৫)। মেহেরপুর পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান জানান, জঙ্গি সম্পৃক্ততা রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে কয়েকটি পরিবার ভাড়া থাকতেন। ১৫ দিন আগে রজনী ও মাবিয়া স্বামী সন্তানসহ দোতলায় ভাড়ায় আসেন। কিন্তু তারা ওই বাড়ির নীচতলা ও আশেপাশের বাসিন্দাদের সঙ্গে চলাফেরা করতেন না। খুব একটা বাড়ি থেকে বেরও হতেন না। তাদের চলাফেরা সন্দেহজনক। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়।

ওই ভবনের নীচতলার ভাড়াটিয়া শ্যামলী সরকার জানান, দুই নারী তাদের স্বামী সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। তাদের কখনো নিচে নামতে দেখা যায়নি। সবসময় দরজা বন্ধ করে ঘরের ভেতর অবস্থান করতেন। সপ্তাহখানেক আগে তাদের বাসায় দুই নারী ও দুই পুরুষ এসেছিলেন। ভাড়াটিয়া দুই নারীর স্বামী কি করতেন তা একদিন জানতে চাইলে তারা ঠিকভাবে প্রশ্নের উওর দেননি। শনিবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে বামন্দীর আখ সেন্টারপাড়ার সৌদি আরব প্রবাসী মিশকাত আলীর দোতলা বাড়িটি ঘিরে রাখে মেহেরপুর জেলা পুলিশের একাধিক দল।

ঘটনাস্থলে গিয়ে মেহেরপুর পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ও গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সিদ্ধান্ত নেন। পরে দুপুর বারটার দিকে অভিযান শুরু হয়। অভিযানে দুই শিশু সন্তানসহ রজনী খাতুন (২০) ও মাবিয়া খাতুন (৩৫) নামে দু’নারীকে  আটক করে পুলিশ। তবে তাদের স্বামীদের পায়নি পুলিশ।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com