বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল আর এমপিরা অ্যানালগ: ইনু

 

স্টাফ রিপোর্টার : ‘বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল আর এমপিরা হলো অ্যানালগ। enu-www-jatirkhantha-com-bdবেশিরভাগ এমপিদের তথ্যপ্রযুক্তি সম্পর্কে ধারণা নেই’-শুক্রবার রাজধানীতে প্রথমবারের মতো আয়োজিত অ্যানিমেশন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

অথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এমপিদের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কে তেমন ধারণা নেই, এজন্য তারা সহকারী রাখেন। কোন প্রোগামে গেলে সহকারীকে বলে তাড়াতাড়ি আমার ছবি ফেসবুকে আপলোড করো। কীভাবে ছবি দিতে হয় সেটাও যানেন না এমপিরা।’

‘এমপিদের হাতে ট্যাব থাকে এটা তাদের স্টাইল হয়ে গেছ। কিন্তু কয় জনে ট্যাব ব্যবহার করতে পারে সেটা দেখার বিষয়’-বলেন তথ্যমন্ত্রী।
বাংলাদেশে ফরাসী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আলিয়ান্স ফ্রঁসেজে প্রথমবারের মতো এই মেলায় থাকছে বাংলাদেশের অ্যানিমেটরদের নির্মিত ফিল্ম শো, অ্যানিমেশন নির্মার্ণের প্রক্রিয়া প্রর্দশন। অ্যানিমেশন ও ইন্টারঅ্যাকটিভ টেকনোলজি অ্যাসোসিয়েশন (আইটা) এর আয়োজন করেছে।

মেলায় ১৫টি প্রতিষ্ঠান ও পাঁচজন অ্যানিমেশন নির্মাতা অংশ নিয়েছেন। মেলায় অ্যানিমেশন ইন্ডাস্ট্রির বর্তমান সমস্যা ও সমাধান নিয়ে সেমিনার ও অ্যানিমেশন নির্মাণের প্রক্রিয়া প্রদর্শন করা হয়। শনিবার পর্যন্ত চলবে এই আয়োজন। সকাল ১০টা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত এই মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘প্রযুক্তি খাত এগুবে কীভাবে? আমাদের দেশের ছেলে-মেয়েদের আমরাই বিশ্বাস করি না। দেশের ব্যাংকাররা দুই কোটি টাকা দামের সফটওয়্যার দুইশ কোটি দিয়ে বিদেশ থেকে কিনে আনেন। অথচ এদেশে যে এর চাইতেও ভালো সফটওয়্যার বানানো যায়।আমাদের অসংখ্য মেধাবী ছেলে-মেয়ে আছে । তাদের মেধা বিদেশে রপ্তানি করে সহজেই বাংলাদেশকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া যায়।’

মোস্তাফা জব্বারের এই বক্তব্যের পর তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নে চারটি গোষ্ঠীকে বুঝাতে হবে। সেগুলো হলো আমলা, ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ এবং জনগণের মনজগত।’ তিনি বলেন, ‘গত আট বছরে জনগণ বুঝতে পেরেছে। এখন প্রয়োজন আমলা ও ব্যবসায়ীদের বোঝানো। আর সরকার তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নে যথেষ্ট আন্তরিক।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অ্যানিমেশন শুধু বিনোদন নয় এর মাধ্যমে জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সচেতনতাও তৈরি করা সম্ভব।’ তিনি বলেন, ‘আইসিটি সেক্টরে অনেক কাজ হচ্ছে। তবে সব বিচ্ছিন্ন-বিক্ষিপ্তভাবে। এভাবে চললে হবে না। টার্গেট ঠিক করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে’।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com