বরিশালে হাসিনা-সাজ সাজ রব

বরিশাল প্রতিনিধি :  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশাল যাচ্ছেন আজ। তিনি নগরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভায় অংশ নেবেন। এ সফর উপলক্ষে borishal-www.jatirkha.com.bdউৎসবের সাজে সেজেছে নগর। রংবেরঙের পতাকা টাঙানো হয়েছে রাস্তায়। বিভিন্ন স্থানে অাঁকা হয়েছে আলপনা। ছয় বছর পর তাঁর এ সফরকে কেন্দ্র করে গোটা বরিশালে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এ উপলক্ষে নগর সেজেছে নতুন রূপে। আলোকসজ্জা, তোরণ, সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ও সাফল্য তুলে ধরা হয়েছে নগরজুড়ে।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর বরিশাল সফর উপলক্ষে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ জন্য নগর পুলিশের পক্ষ থেকে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে গত রোববার সভা করে নগর পুলিশ। এতে প্রশাসন, রাজনীতিবিদ ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা অংশ নেন।
নগর পুলিশের কমিশনার এস এম রুহুল আমিন জাতিরকন্ঠকে বলেন, নিরাপত্তার কাজে প্রায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য, গোয়েন্দা পুলিশ ও র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

সাধারণ মানুষের যাতে সমস্যা না হয়, সে জন্য যানবাহনব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পথনকশা প্রণয়ন করা হয়েছে। সে অনুযায়ী নগরে যানবাহন চলাচল করবে। জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বলেন,  আজ বরিশালের বাকেরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমে সেনানিবাসের উদ্বোধন করবেন। সেখানে তিনি পটুয়াখালীর আরও ১৪টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও একটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী বেলা তিনটায় বরিশালের ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভায় অংশ নেবেন। সেখানে ৪০টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ৩৪টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

বিএনপি-আত্মগোপনে

বিএনপির নেতা-কর্মীরা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর বরিশাল আগমনকে ঘিরে পুলিশ বাড়িতে বাড়িতে গ্রেপ্তার অভিযান চালানোয় দলটির নেতা-কর্মীরা আত্মগোপনে যেতে বাধ্য হয়েছেন। বেশ কিছু নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর নেতৃস্থানীয় নেতাদের বেশির ভাগই ঢাকায় অবস্থান নিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রীর আজকের বরিশাল আগমন এবং একই দিন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণার কথা রয়েছে। এ নিয়ে বরিশালের বিএনপি নেতা-কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়দুল হক গতকাল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বরিশালে আসছেন। একই দিন বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলার রায় দেওয়ার কথা আছে। কিন্তু ওই দিন তো বরিশালে আমরা কোনো কর্মসূচি দিইনি। কর্মসূচি নির্ভর করবে রায়ের ওপর। কিন্তু তার আগেই বরিশালের প্রতিটি জেলা-উপজেলায় আমাদের নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।’

নগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দীন সিকদার বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় অন্যায়ভাবে রায় দিলে যাতে বিএনপির নেতা-কর্মীরা প্রতিবাদ করতে না পারেন, সে জন্য নেতা-কর্মীদের বাড়ি-ঘরে অভিযান চালিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে বিএনপির বরিশাল বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিছ আক্তার জাহান বলেন, পুলিশ বিএনপি নেতা-কর্মীদের ঘরে তল্লাশি চালাচ্ছে, এটা নতুন কিছু নয়। এমনকি বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও তারা বাধা দিচ্ছে। কিন্তু এখন তারা আরও মরিয়া।তিনি বলেন, চেয়ারপারসনের রায় নিয়ে তাঁদের আগাম কোনো কর্মসূচি নেই। তারপরও পুলিশ ও সরকারের এমন আচরণের নিন্দা করার ভাষা নেই।

তবে পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘এটা পুলিশের নিয়মিত কার্যক্রম। আমরা ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান করছি। এর সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পর্ক নেই। সব মিলিয়ে ১০ জনও গ্রেপ্তার হয়নি। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তারা গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ও সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তবে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে যদি কেউ এখানে বিশৃঙ্খলা করতে চায়, সেটা বরদাশত করা হবে না।’

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com