‘তখন কোথায় ছিল আদালত’

বিশেষ প্রতিনিধি  :  জাতীয় প্রেসক্লাবে আজ ‘তিনিই বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা সভার আযোজন করা হয়। বাংলাদেশে nasim-www.jatirkhantha.com.bdউন্নয়ন ঠেকাতে আবার নতুন করে দেশবিরোধীরা চক্রান্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেছেন, জাতির কয়েকজন বেইমান যখন বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে, চার জাতীয় নেতাকে হত্যা করেছে, একটি কালো আইন করে হত্যাকারীদের নিরাপত্তা দিয়েছে, তখন কোথায় ছিল আদালত?

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ‘তিনিই বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন।মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘আজ আবার চক্রান্ত শুরু হয়েছে। কারণ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার করেছেন। শেখ হাসিনাকে ঠেকাতে নতুন ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। এই চক্রান্তকারীদের একটাই লক্ষ্য, যেকোনোভাবে শেখ হাসিনাকে ঠেকাতে হবে।’

নাসিম বলেন, বিএনপি নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবি করছে। কিসের সহায়ক সরকার? বাংলাদেশের জনগণই সহায়ক সরকার। এসব কথা বলে লাভ নেই। সারা বিশ্বের সংসদীয় গণতন্ত্রে যেভাবে নির্বাচন হয়, বাংলাদেশেও সেভাবেই হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিরা যেসব দেশে পালিয়ে আছে, তাদের ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর খুনিরা যে দেশে পালিয়ে আছে, সেসব দেশের প্রতি ১৬ কোটি মানুষের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানাব, আপনারা খুনিদের ফিরিয়ে দিন।’ সতীর্থ-স্বজন আয়োজিত এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্বে করেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও প্রবীণ সাংবাদিক রাহাত খান।

এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, শহীদ বুদ্ধিজীবী আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী, মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায় প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com