ঝন্টুর বিরুদ্ধে রায় গেল কেন?

 

রংপুর থেকে রাহাত খান ও এস এম খলিল বাবু : রংপুরে মেয়র নির্বাচনে জাতিরকন্ঠের ভবিষ্যতবাণী ফলে গেল। রংপুরের ভোট নিয়ে জাতিরকন্ঠের ভবিষ্যতবাণী vote-rangpur-www.jatirkhantha.com.bd.=================প্রতিফলিত হয় বিকেল ৫টার মধ্যে। সেখানে আমাদের দুই প্রতিনিধি সরেজমিনে নানা পেশার মানুষের সঙ্গে কথা বলেন । ভোটারদের সরাসরি কথায় আমরা নিশ্চিত ছিলাম রংপুরবাসী আর ব্যবহার খারাপ দেখতে চায়নি ঝন্টুর কাছ থেকে।বরং ভোটাররা একেবারে ধিক্কার দিয়েছে ঝন্টুকে। এর ফল দেখা গেছে ভোটের ফলাফলে। কারণ, রাত ১১টায় সর্বশেষ রেজাল্টে ঝন্টুর চেয়ে ৩ গুণের বেশী ভোটে এগিয়ে মোস্তফা।

এখন প্রশ্ন ঝন্টুর বিপক্ষে’ই রায় গেল কেন?? অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা এবং তাঁর উন্নয়নের কারণে রংপুরবাসী খুশী থাকলেও খারাপ ব্যবহার করা লোকটা’ই কাল হলো। মানে মি. ঝন্টু ভুল বুঝিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে মিসগাইড করেছেন।বর্তমানে রংপুরবাসী প্রধানমন্ত্রীকে মিসগাইড করার জন্যে ঝন্টুর বিচার ও
শাস্তি দাবি করেছেন।
j-k-www.jatirkhantha.com.bd
আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ভোট শেষ হওয়ার পর পরই একাধিক ভোটার বলেছেন, মি. ঝন্টু ভুল বুঝিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে মিসগাইড করেছেন। ক্ষমতায় থাকাকালে তার খারাপ ব্যবহার ও আচরণে মানুষ অতিষ্ঠ ছিল। তাই তাকে ভোট দেননি মানুষ। রংপুরবাসী ভোট দিয়েছে লাঙ্গলে।গত বুধবার রাত থেকেই লাঙ্গলের জয়ের হাওয়া বইছিল রংপুরের  সর্বত্র। আজ ভোট গননা শুরু হওয়ার পর লাঙ্গলের ভোট বাড়তে থাকে। এ অবস্থায় মানুষ নিশ্চিতভাবে বলছেন, আর খারাপ ব্যবহার দেখতে চাইনা– তাই লাঙ্গলেই ভোটটা দিয়ে এলাম।

vote-rangpur-www.jatirkhantha.com.bd999এদিকে অধিকাংশ কেন্দ্রের ফলাফলে দেখা যায়, এইচ এম এরশাদের শহরে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে তিন গুণ ভোটে এগিয়ে আছেন জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১০টা নাগাদ ১৯৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩৩টির ফল ঘোষণা হয়। তাতে লাঙ্গল প্রতীকে মোস্তফা পেয়েছেন ১ লাখ ১৭ হাজার ৫৪০ ভোট।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ও বিদায়ী মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৪৫ হাজার ১৩৩ ভোট। তার পেছনেই আছেন ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী কাওসার জামান বাবলা; তার ভোট ২৫ হাজারটি।

এই নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে সাত প্রার্থীর সঙ্গে ৩৩ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ২৭৬ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৯৩টি কেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহণ শেষে কেন্দ্রে কেন্দ্রে শুরু হয় গণনা।বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে তথ্য পাওয়ার পর পুলিশ কমিউনিটি হলে বসানো নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে ফল ঘোষণা করা হচ্ছে। সেখানে রয়েছেন  এ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র সরকার।
vote-rangpur-www.jatirkhantha.com.bd.1
এ নির্বাচনে ভোটার প্রায় ৪ লাখ। তার মধ্যে বেলা দেড়টা পর্যন্ত ৪৬ শতাংশ ভোট পড়ার তথ্য জানিয়ে সুভাষ বিকালে বলেছিলেন, শেষ পর্যন্ত ভোটদানের হার ৭০ শতাংশ হতে পারে বলে তারা আশা করছেন। কোনো কেন্দ্র থেকেই গোলযোগের কোনো খবর আসেনি, যাকে নজিরবিহীন বলছেন ভোটাররা।ঢাকায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদাও বলেছেন, ‘সুষ্ঠু ও সুন্দর’ পরিবেশে উৎসবের আমেজে ভোট হওয়ায় কমিশন ‘সন্তুষ্ট’।ভোট নিয়ে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির কোনো অভিযোগ না থাকলেও বিএনপি বলেছে, সুষ্ঠু ভোট আয়োজনে ব্যর্থ হয়েছে ইসি।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com