জিয়া-বিএনপিকে তেল দেয়ায় সিইসি’র পদত্যাগ চাইলো কাদের সিদ্দিকী

বিশেষ প্রতিনিধি : জিয়াউর রহমানকে এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্রের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা বলার প্রতিবাদে সংলাপ বয়কট করেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের kader_siddiki_daily_www.jatirkhantha.com.bdসভাপতি আবদুল কাদের সিদ্দিকী। একই সঙ্গে তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার পদত্যাগ দাবি করেছেন। সোমবার (১৬ অক্টোবর) সকালে দলটির কয়েকজন প্রতিনিধি নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নেয়। সংলাপ থেকে বের হয়ে তিনি এ দাবি জানান।

গতকাল রবিবার বিএনপির সঙ্গে সংলাপে সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, জিয়াউর রহমান এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ১৯৯১ সালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হন। এরপর ২০০১ সালে তাঁর নেতৃত্বে আবারও সরকার গঠিত হয়। বিএনপি রাষ্ট্র পরিচালনার কাজে প্রকৃত নতুন ধারার প্রবর্তন করেছে।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, সিইসি গতকাল বলেছেন, জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছেন। যদি জিয়াউর রহমান এটা করে থাকেন, তাহলে কেউ না কেউ বহুদলীয় গণতন্ত্র হত্যা করেছ। তাঁর এই বক্তব্যের সঙ্গে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ একমত নয়। সিইসি এ কথা বলতে পারেন না। সিইসি অন্য কমিশনারদের সঙ্গে আলোচনা না করে এককভাবে এ কথা বলেছেন।

কাদের সিদ্দিকীর দাবি, তাঁরা আড়াই ঘণ্টা সংলাপ করার পর এই বক্তব্যের প্রতিবাদে সংলাপ বয়কট করেন। তিনি বলেন, সিইসি এ বক্তব্যের ব্যাখ্যায় তাঁদের বলেছেন, গতকাল যারা (বিএনপি) সংলাপে এসেছিল, তাদের ভালো কাজগুলো ওয়েবসাইট থেকে নিয়ে তিনি বলার চেষ্টা করেছেন।
সংলাপে দলটি নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দেওয়া, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন, সেনা মোতায়েন করাসহ ১৮ দফা দাবি তুলে ধরেন।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com