কাবুল ইন্টারকন্টিনেন্টালে জঙ্গি হামলা

 

ডেস্ক রিপোর্টার : আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে বন্দুকধারীদের হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছেন।শনিবার রাতে শুরু Kabul_Afghanistan-attack-www.jatirkhantha.com.bd.222হওয়া এ হামলা চলাকালে বন্দুকধারীরা বেশ কয়েকজনকে জিম্মি করেছে ও নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলি চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে কাবুল পুলিশ।হামলা চলাকালে হোটেলটিতে আগুন ধরে যায় ও হোটেলটির কর্মীরা পালিয়ে যায়।হোটেল ম্যানেজার আহমেদ হ্যারিস নায়াব অক্ষত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে বের হয়ে আসতে পেরেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, হামলাকারীরা রান্নাঘরের মধ্যদিয়ে হোটেলটির প্রধান অংশে প্রবেশ করে গুলিবর্ষণ শুরু করলে লোকজন হোটেল ছেড়ে বের হওয়ার চেষ্টা করে।আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানেশ জানিয়েছেন, হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছেন। কাবুলের হোটেলগুলোতে হামলা হতে পারে, যুক্তরাষ্ট্র দূতবাস থেকে এমন সতর্কবার্তা আসার কয়েকদিনের মধ্যে হামলাটি হল বলে জানিয়েছেন তিনি।

হোটেলটি থেকে ১৬ জন বিদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে, কিন্তু তারা কোন দেশের নাগরিক তা পরিষ্কার হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। হতাহতের বিষয়ে সরকারিভাবে বিস্তারিত আর কিছু জানানো হয়নি। তাৎক্ষণিকভাবে হামলায় দায় স্বীকার করেনি কোনো গোষ্ঠী।কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সম্ভবত চারজন বন্দুকধারী হামলাটি চালিয়েছে এবং আফগান বিশেষ বাহিনী হোটেলটির প্রথম তলা মুক্ত করে ভবনটির ওপর দিকের তলায় উঠে হামলাকারীদের সঙ্গে লড়াই করার সময় দুই হামলাকারী নিহত হয়েছে।হামলাকারীদের কাছে প্রচুর সংখ্যক হাতবোমা আছে বলে মনে করা হচ্ছে।

হামলা শুরু হওয়ার কয়েক ঘন্টা পর হোটেলটির ভিতরে নিরাপত্তা বাহিনীর অবস্থান দৃঢ় হওয়ার পর গোলাগুলির পরিমাণ কমে আসে। এরপর ভোর হওয়ার জন্য অপেক্ষা শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, হামলাকারীরা হোটেলটির কয়েকজন কর্মী ও অতিথিকে জিম্মি করেছে। ওই অতিথিদের মধ্যে বিদেশি রয়েছেন, কিন্তু তারা কোন দেশের তা পরিষ্কার নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

কাবুলে অধিকাংশ সরকারি ভবনের মতো ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলেও ব্যাপক সুরক্ষা ব্যবস্থা ছিল। একটি পাহাড়ের ওপর অবস্থিত হোটেলটিতে এর আগে ২০১১-তে হামলা চালিয়েছিল তালেবান। কাবুলের প্রধান দুটি বিলাসবহুল হোটেলের মধ্য এটি অন্যতম। রোববার এই হোটেলটিতে একটি তথ্যপ্রযুক্তি সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল।হামলা শুরু হওয়ার সময় হোটেলটিতে শতাধিত তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবস্থাপক ও প্রকৌশলি উপস্থিত ছিলেন বলে জানিয়েছেন দেশটির টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আহমদ ওয়াহেদ।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com