এবার রাজাকার চিনলো প্রেসিডেন্ট!

 

 
অনলাইন ডেস্ক রিপোর্টার :  এবার ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় পাকিস্তানের গোমর ফাঁস করে  দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, গত ১৫ বছরে যুক্তরাষ্ট্র ৩৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি tramp-www.jatirkhantha.com.bdসহায়তা দিলেও তার বিনিময়ে ‘কিছুই’ দেয়নি ইসলামাবাদ। ক্ষমতায় বসার পর থেকেই একের পর এক ঘটনার জন্ম দিয়ে চলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার নতুন বছরের শুরুতেই পাকিস্তান সম্পর্কে বিস্ফোরক এক মন্তব্য করে বসলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

গতকাল সোমবার এক টুইট বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট লিখেছেন, পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদীদের ‘নিরাপদ স্বর্গ’ উপহার দিচ্ছে। এমনকি সামান্য সহায়তাও দিচ্ছে, এর বেশি কিছু নয়।
ট্রাম্প আরো লিখেছেন, “যুক্তরাষ্ট্র একদম বোকার মতো গত ১৫ বছরে পাকিস্তানকে ৩৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ-সহায়তা দিয়েছে; কিন্তু তারা আমাদের ‘কিছুই’ দেয়নি। আমাদের নেতাদের চিন্তাভাবনা ভুল ছিল।”এর আগে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল বলেছে, হোয়াইট হাউস এ মুহূর্তে পাকিস্তানকে ২৫৫ মিলিয়ন ডলার সহায়তা পাঠানোর কথা ভাবছে না। পাকিস্তানের সহযোগিতার মাত্রা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এদিকে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় উল্টো অভিযোগ করে লিখেছে, গত ১৬ বছরে পাকিস্তান জঙ্গি দমনে যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা করে আসছে। আল-কায়েদাবিরোধী অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রকে জমি, মিলিটারি বেস, বিমানসহ বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতা দিয়েছে। সেই তুলনায় পাকিস্তানকে আক্রমণ ও অবিশ্বাস করা ছাড়া কিছুই দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র।অবশ্য এর আগেই পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা মো. আসিফ টুইট করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমরা দ্রুতই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের টুইট বার্তার জবাব দেব ইনশাআল্লাহ, আমরা বিশ্বকে জানাব আসল সত্যতা কী, প্রকৃত ঘটনা ও মিথ্যা গল্পের মধ্যে ফারাক কোথায়।’

পাকিস্তানকে এর আগেও ‘সন্ত্রাসবাদের স্বর্গ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। গত আগস্টে এক বক্তৃতায় ট্রাম্প বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে, কিন্তু পাকিস্তান সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দিচ্ছে আর যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছে।যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনার বিপরীতে পাকিস্তান বলছে, পাকিস্তানের ভূমি থেকে জঙ্গিদের তাড়াতে পাকিস্তান বিভিন্ন সময় সেনা অভিযান চালিয়েছে। জঙ্গিবিরোধী অভিযানে ২০০১ সাল থেকে এক হাজার ৭০০ পাকিস্তানি নিহত হয়েছে।তবে ট্রাম্পের এমন বিস্ফোরক মন্তব্যের পর এখন পর্যন্ত ওয়াশিংটন ডিসির পাকিস্তান দূতাবাস তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com